আজ ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে বুলবুল

 

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:- গরু রাখার ঘরে কয়েলের আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে সব৷ ঘরবাড়ি,গরু, টাকা সহ সর্বস্ব হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পরেছে ৭ টি পরিবারের সকলে৷ সে সকল পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন সমাজসেবক বুলবুল আহমেদ।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০ টায় ঠাকুরগাঁওয়ের বালীয়াডাঙ্গী উপজেলার বড় পলাশবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ পারুয়া গ্রামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে খাদেমুল,ইসাহাক সহ ৭ টি পরিবারের সবকিছু পু্রে ছাই হয়ে যায়। আগুনের হাত থেকে সম্পদ বাঁচাতে অগ্নি দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ইসাহাক।

বুধবার বিকালে সে সকল অগ্নিকান্ডে পরিবারের পাশে আর্থিক সহযোগিতা ও কাপড় চোপড় দিয়ে সহযোগিতা করেন বুলবুল আহমেদ৷ সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ১০ হাজার টাকা ও বাকী ৬ টি পরিবারকে ৫ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা দিয়েছেন তিনি৷ সেই সাথে প্রতিটি পরিবারকে কাপড় চোপড় দিয়েছেন তিনি৷

অগ্নিকাণ্ডে সর্বস্ব হারানো খাদেমুল ইসলাম বলেন, আগুন লাগার ঘটনা শোনার পর বালীয়াডাঙ্গী থেকে আমি খুব তারাতাড়ি বাড়ি চলে যায়৷ তারপরেও আমি বাড়ি পৌঁছাতে পৌঁছাতে সব শেষ হয়ে যায়৷ আমাদের বুলবুল আজকে টাকা ও শাড়ী-লুঙ্গি দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করলো৷

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে সহযোগীতা শেষে বুলবুল আহমেদ বলেন,চাকুরীর সুবাদে গাজীপুরে থাকা হয়। গত রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে অগ্নিকাণ্ডের লাইভটি দেখি৷
আমার বাড়ির পাশে হওয়ায় আমি আর স্বাভাবিক থাকতে পারিনি৷ তাই আজকে দুপুর বেলা চলে এসেছি৷ এখানকার আসার পর যা দেখলাম তা আর বলার ভাষা নেই। চোখের পানি আটকানোর মত নয়। ৭ টি পরিবার একেবারে নি:স্ব হয়ে গিয়েছে। আমি আমার সাধ্যমত তাদের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করেছি৷ সরকার ও বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান করছি৷

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...