আজ ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জমির সীমানাকে কেন্দ্র করে তমিজুলকে প্রাণনাশের হুমকি!

 

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট।

লালমনিরহাটে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে এক সাইকেল মেরামত কারীকে (মেকার) প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। এবিষয়ে ভুক্তভোগী ঐ সাইকেল মেরামতকারী (মেকার) তমিজুল ইসলাম তুহিন বাদী হয়ে একই পরিবারের ৫ জনের নাম উল্লেখ করে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের আটবিল দর্পনাস্কর গ্রামের বাসিন্দা তমিজুল ইসলাম তুহিনের ভোগদখলকৃত ১৩ শতাংশ জমি দীর্ঘদিন থেকে অসৎ উদ্দেশ্যে, বে আইনী ভাবে দখল করার পায়তারা করে আসছেন প্রতিবেশী রমজান আলী ও তার পরিবারের সদস্যরা।
এনিয়ে তাদের দুই পরিবারের মধ্যে প্রায় ঝগড়া-বিবাদ সহ বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে, ঘটনার দিন গত ১৮ মে বেলা ১১ টার দিকে একই গ্রামের মৃত মান্নান সরকারের ছেলে রমজান আলী (৫৫), রমজান আলীর ৩ ছেলে, মঞ্জুর আলম (২৮), রুবেল মিয়া (২৬) ও রাসেল মিয়া (২৩) এবং রমজান আলীর স্ত্রী রোজিনা বেগম (৫০) ভুক্তভোগী সাইকেল মেরামতকারী (মেকার) তমিজুল ইসলাম তুহিনের বসতবাড়ীর শোবার ঘরের পিছনে জমির সীমানা ঘেঁষে মাটি খুরতে থাকে। এসময়, তাদের মাটি খুরতে নিষেধ করলে রমজান আলী সহ অভিযোগে উল্লেখ্যিত অন্যান্য বিবাদীগণ অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এবং, প্রাণে শেষ করে দিবে বলে হুমকি প্রদান করে প্রতিবেশী রমজানকে।

পরে, তমিজুল ইসলাম তুহিন ঘটনাটি স্থানীয় ভাবে আপোষ-মিমাংসায় ব্যর্থ হয়ে, ঘটনার বিচার চেয়ে নিজে ও পরিবারের সদস্যদের মারপিট সহ ক্রয়কৃত জমি দখল করতে পারে এমন ভয়ে ভীত হয়ে অভিযোগে উল্লেখিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় সাইকেল মেরামতকারী (মেকার) তজিমুল ইসলাম বাড়ির পাশের ওকরাবারী নামক বাজারের রাস্তার পাশে সাইকেল ও রিক্সা ভ্যান মেরামত করে অতি কষ্টে স্ত্রী ও ৩ কন্যা সন্তান নিয়ে বসবাস করেন ঐ বাড়িতে। এলাকাবাসী জানায়, লোকটি অসহায় তার কোনো ছেলে নেই তিন মেয়ে স্কুলে পড়ে।
ভুক্তভোগী সাইকেল মেরামতকারী (মেকার) তমিজুল ইসলাম তুহিন জানান, সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। যখন এই বাড়িতে সে পাকা ঘর ওঠাতে শুরু করেছেন তখন থেকেই তার সাথে খারাপ আচরণ করতে থাকে রমজান, রমজানের পরিবারের সদস্যরা ও সৎ ভাই আবদুল সাত্তার সহ তার পরিবারের লোকজন। তারা নানা সময় বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে আসছে ভুক্তভোগী পরিবারটির ওপর।

একপর্যায়ে ঘরের অর্ধেক ইট গাঁথা হয়ে গেলে রমজানের বাঁধার মুখে রাজমিস্ত্রীরা ঘরের কাজ অসম্পন্ন রেখেই চলে যান। তখন থেকেই অর্ধেক ইটের দেয়াল ও উপরে টিনের ছাউনি তৈরি করে সেখানেই বসবাস করছে সাইকেল মেরামতকারী (মেকারের) পরিবার।

এমনি ভাবে হঠাৎই প্রতিবেশী রমজান বিবাদমান জমি থেকে মাটি কাটতে শুরু করেন। ৩/৪ জন মাটি কাটা শ্রমিক নিয়ে যেভাবে মাটি কাটা হচ্ছে এমন ভাবে মাটি সেখান থেকে সরাতে থাকলে ৩/৪ দিনের মধ্যে থাকার ঘরটি পড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সাইকেল মেরামতকারী (মেকার) তমিজুল ইসলাম তুহিন।

এবিষয়ে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করতে তাদের বাড়িতে গেলে খুঁজে পাওয়া যায়নি।
এবিষয়ে লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, অভিযোগ গ্রহণ করে অফিসার নিযুক্ত করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...