আজ ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নরসিংদীতে স্বপন হত্যার মূল হোতাসহ ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

মনিরুজ্জামান নরসিংদীঃ

নরসিংদীতে অটোরিকশা চালক স্বপন মিয়া হত্যা মামলার মূল হোতা নাঈম মিয়া (২২) ও জাকির হোসেন (২৫) নামে ২ আসামীসহ পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইকারী দলের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে নরসিংদী পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত পূথক পৃথক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিন।


আসামি নাঈম মিয়া নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার পূর্ব ডোমনমারা এলাকার মৃত আঃ রশিদ এর ছেলে এবং আসামি মোঃ জাকির হোসেন একই উপজেলার পশ্চিম বীরগাও এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় গত তিন আগস্ট মনোহরদী উপজেলার বিরগাঁও এলাকার মৃত আপ্তুর উদ্দিনের ছেলে স্বপন মিয়া (৩৫) দুপুরের খাওয়া-দাওয়া শেষে অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর রাত অনুমান সাড়ে নয়টার দিকে স্বপন মিয়ার শ্যালক তার অটোরিকশাটি ডোমনমারা এলাকার রেনু মাস্টারের বাড়ির সামনে পড়ে থাকতে দেখে তার বোনকে খবর দেয়। সেখানে এসে তারা সারারাত খোঁজ করেও স্বপন মিয়ার খোঁজ মেলেনি। পরদিন ৪ আগস্ট সকাল সোয়া বারোটার দিকে পাশ্ববর্তী ডোবার কচুরিপানার নীচ থেকে স্থানীয় লোকজন তার লাশ উদ্ধার করে। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী মোছাঃ নাছিমা আক্তার (৩৪) বাদি হয়ে মনোহরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করে,মামলা নং ০৪।
এরই পরিপ্রেক্ষিতে নরসিংদী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান ও পুলিশ পরিদর্শক মোঃ শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স সহ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় প্রথমে নাইম মিয়া (২২) পরে জাকির হোসেন (৩৫) কে গ্রেফতার করে।
তদন্তকালে ভিকটিমের হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি গামছা, গ্রেফতারকৃত আসামির একটি মোবাইল ফোনসহ চারটি মোবাইল, ভিকটিমের ব্যবহৃত একটি লুঙ্গি,৪ জোড়া স্যান্ডেল ও ভিকটিমের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়।
পরে পৃথক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিন জানান, নরসিংদীতে পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাইকারী দলের ৫ সদস্যকে ভিকটিমের ব্যাবহৃত একটি মোবাইল ফোন, ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার ও ছিনতাইকৃত ৫ টি অটোরিকশা সহ গ্রেফতার করা হয়েছে।
রবিবার (৭ আগস্ট) নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আবুল বাশার পিপিএম (বার) এর নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত হলো,১। মোঃ আরিফ মিয়া (২৮)পিতাঃ আব্দুর রহমান ,সাং:সাদিপুর ,থানাঃ সোনারগাঁও ,জেলাঃ নারায়ণগঞ্জ,২। মোঃ রিপন মিয়া (৩৩)পিতাঃ ইউনুস আলী,সাং: কোনাবাড়ি,থানাঃ সোনারগাঁও,জেলাঃ নারায়ণগঞ্জ ,৩। মোঃ মিম ইসলাম (২৬)পিতাঃ তাজুল ইসলাম ,সাং: সাদিপুর ,থানাঃ সোনারগাঁও,জেলাঃ নারায়ণগঞ্জ ,৪। মোঃ রুবেল মিয়া (৩০)পিতাঃ লোকমান হোসেন সাং: সাদিপুর ,থানাঃ সোনারগাঁও,জেলাঃ নারায়ণগঞ্জ,৫।আনোয়ার হোসেন(৩৮)পিতামৃত আমির হামজা সাং-গুকলদাসের বাগ থানা-বন্দর ,জেলা-নারায়নগঞ্জদের
সূত্রঃ-পলাশ থানার মামলা নং-০৩, তারিখ-০৭/০৮/২০২২ইং, ধারা-১৭০/৩৭৯/৩৪ পিসি।

আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা পলাশ থানায় পুলিশ পরিচয়ে অটো ছিনতায়ের ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। আসামী রুবেল এবং রিপনের বিরুদ্ধে শিবপুর ও সোনারগাঁও থানায় অটোচুরির মামলা রয়েছে।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...