আজ ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মনোহরদীতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণ

 

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ

নরসিংদীর মনোহরদী হাতিরদিয়াতে সৈয়দের গাও ওরশ মাহফিলে যাওয়ার পথে ৮ম শ্রেনীর এক মাদরাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। গত সোমবার রাতে উপজেলার সৈয়দেরগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার সকালে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে একজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামী করে মনোহরদী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ ।
আটক হওয়া মেহেদী হাসান একই ইউনিয়নের গোখলা গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও ভূক্তভোগী ছাত্রীর পরিবারের লোকজন জানান, মেহেদী হাসান ওই ছাত্রীকে মাদরাসায় আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করত। বিষয়টি বাড়ীতে এসে তার মাকে জানায়। পরে তার মা মেহেদী হাসানের বাড়ীতে গিয়ে তার বাবা-মার বিষয়টি জানিয়ে উত্যক্ত না করতে ছেলেকে নিষেধ করতে বলেন। এ ঘটনায় মেহেদী আরও বেশী ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।
গত সোমবার রাতে বাড়ীর কাছে পাঁচ পীরের মাজারে বার্ষিক ওরশ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ওই ছাত্রীসহ তার পরিবারের লোকজন অংশ নেয়। রাত ১ঃ৩০ মিনিটে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ীতে আসে ওই ছাত্রী। পুনরায় ওরশে যাওয়ার পথে মেহেদী হাসানসহ অজ্ঞাত আরও তিনজন তাঁর মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক সৈয়দেরগাঁও বিলের মধ্যে নিয়ে যায়। সেখানে চারজন পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। রাত ২ঃ৩০ মিনিটে কান্না করতে করতে সে বাড়ীতে এসে তার বাবা-মাকে জানায়। পরে বুধবার সকালে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে মেহেদী হাসানসহ অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামীকে মনোহরদী থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মনোহরদী থানার (ওসি) মো. ফরিদ উদ্দিন জানান, ‘প্রধান আসামী মেহেদী হাসানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও দুইজনকে থানায় আনা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততা পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...