আজ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রায়পুরায় নেশা করতে বাঁধা দেয়ায় বৃদ্ধের বাড়িতে আগুন

রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি:

নরসিংদীর রায়পুরায় নেশা করতে বাঁধা দেয়ায় আবদুল খালেক (৭০) নামে এক বৃদ্ধের ঘরে আগুন লাগিয়েছে মাদকসেবীরা।

রবিবার রাত ২ ঘটিকায় উপজেলার উত্তরবাখর নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটব।

আজ সোমবার ভুক্তভোগী ওই বৃদ্ধ রায়পুরা থানায় এ ঘটনার বিচার চেয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

ভুক্তভোগী আবদুল খালেক লোচনপুর এলাকার আব্দুল হাসেমের ছেলে।

অভিযুক্তরা হলেন,
একই এলাকার নূর নবীর ছেলে আল-আমিন, আফসুর উদ্দিনের ছেলে আহসান উল্লাহ, শাহজাহানের ছেলে শাহ-আলম, সিরাজ মিয়ার ছেলে ইমরান মিয়া।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগীর বাড়ির আঙ্গিনায় দীর্ঘদিন যাবত এলাকার কিছু মাদকসেবী ও বখাটে নিয়মিত জুয়া এবং মাদক সেবনসহ বিভিন্ন অবৈধ কর্মকান্ড করে।

এসব অপকর্মের ব্যাপারে ওই বৃদ্ধ প্রতিবাদ করেন।

গত দুই দিন ধরে ওই বৃদ্ধের তাদের সাথে এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে মাদকসেবীরা বৃদ্ধাকে লাঠি নিয়ে মারতে আক্রমন করে এবং প্রতিনিয়ত বৃদ্ধকে হত্যার হুমকী দেয় বখাটেরা।

ভুক্তভোগী তার পরিবারের লোকজনকে এ বিষয়টি জানান।

পরে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে বখাটেরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।

প্রতিবেশি হাবিবুর রহমান বলেন যে বিগত কয়েক বছর যাবত এই বখাটেরা বিভিন্ন অনৈতিক কাজের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের সমস্যা করে আসছিল।

ভুক্তভোগীর আঃ খালেকের ছেলে বলেন, বাবা একা বাড়িতে থাকেন। কৃষি কাজ করে উপার্জিত অর্থ এবং ধান, চাল ছিল। তারা ঘরে থাকা জিনিসপত্র অর্থ লুট করে আগুন লাগিয়ে চলে যায়। আগুনে সবকিছু পুড়িয়ে ছাই হয়েছে। এ বিষয়ে চেয়ারম্যান এবং মেম্বারকে জানিয়েছি।
অপরাধীকে খুঁজে বের করে শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

ভুক্তভোগী আবদুল খালেক বলেন, বখাটেরা বাড়ির পাশে মাদকসেবনসহ অনৈতিক কর্মকান্ড করে। আমি এতে বাঁধা দেই। একারনেই তারা রোববার রাত ২টায় সময় আমার ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়।

আমি ও আমার পরিবার বর্তমানে তাদের ভয়ে জীবনের নিরাপত্তায় ভুগছি।

তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

রায়পুরা থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক জহিরুল হক বলেন অভিযোগ পেয়েছি এবং তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রকৃত দোষীদের খুঁজে বের করা আইনের আওতায় আনা হবে।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...