আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রায়পুরায় পরকিয়ার কারনে স্ত্রী হত্যাকারী স্বামীর থানা হাজতখানায় মৃত্যু

 

জেলা প্রতিনিধি,নরসিংদী :-

নরসিংদীর রায়পুরা থানায় রিমান্ডে থাকা অবস্থায় এক আসামির রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। স্ত্রী হত্যার দায়ে নরসিংদীর রায়পুরা থানায় রিমান্ডে থাকা অবস্থায় এক আসামির রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশের দাবি, আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯.৩০ মিনিটে দিকে রায়পুরা থানাহাজতের বাথরুমের জানালার রডের সঙ্গে নিজের পরিহিত শার্ট দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

মারা যাওয়া আসামি সুজন মিয়ার (৩৫) বাবার নাম মজিবর। তার বাড়ি রায়পুরা থানার মামুদপুরে। রায়পুরা থানায় নিহতের মামলা নম্বর-
০৮/১১/২২। পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী লাভলী আক্তার (৩০) হত্যার অভিযোগ ওঠে তার স্বামী সুজনের বিরুদ্ধে। গত ৬ নভেম্বর রোববার ভোরে উপজেলার মাহমুদপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই নিহতের স্বামী সুজনসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল-আমিন জানান, তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় পুলিশ ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানার আটরশি দরবার শরিফ থেকে নিহত সুজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করে।


গত মঙ্গলবার স্ত্রী হত্যা মামলায় আসামিকে নরসিংদী আদালত থেকে
জিজ্ঞাসাবাদ দুদিনের রিমান্ডে রায়পুরা থানা হাজতে আনা হয়। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯. ৩০মিনিটে থানাহাজতে তাকে জানালার রডের সঙ্গে ঝুলতে দেখতে পেয়ে পুলিশ দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। উল্লেখিত বিষয় বিস্তারিত অনুসন্ধানের নিমিত্তে জেলা পুলিশ নরসিংদী কর্তৃক ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং রায়পুরা থানা পুলিশ কর্তৃক আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন চলছে বলে দুপুরে এক লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল- আমিন জানান।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...