আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লালমনিরহাটে ট্রেন দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে যান শতাধিক মানুষ!

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট

লালমনিরহাট শহরে ব্যস্ততম রেলের লেভেল ক্রসিং বিডিআর গেট। এখানে ক্রসিংয়ে দু’টি রেল লাইন রয়েছে। দু-লাইনের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা বার। সঠিক তদারকির অভাবে এখানে প্রায় দুর্ঘনা ঘটে।

রোববার (৩১ জুলাই) বিকালে রেল ক্রসিংয়ের গেট ম্যান ভুল করে যে লাইনের ট্রেন আসবে সেটি না নামিয়ে পাশের লাইনের বার নামিয়ে দেন। ফলে মানুষ ও যানবাহন দাড়িয়ে থাকা রেল লাইনে হুট করে চলে আসে ট্রেন। দাড়িয়ে থাকা সবাই দ্রুত সরে যাওয়ায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যান শতাধিক মানুষ।

রোববার বিকেলে বুড়িমারীগামী যাত্রীবাহী ৭১ নম্বর কমিউটার ট্রেন যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্টেশন মাস্টার জামিল উদ্দিনকে বুকঅফ (আপাতত সরিয়ে রাখা) ও গেটম্যান নাদের হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরে দায়িত্বে থাকা গেটম্যান নাদের হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে রেল বিভাগ। লালমনিরহাট স্টেশন মাস্টার জামিল উদ্দিনকে দায়িত্বের অবহেলার কারণে স্টেশন থেকে আপাতত সরিয়ে রাখা (বুকঅফ) হয়েছে।

লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার (ডিআরএম) শাহ সুফি নুর মোহাম্মদ বলেন, বিষয়টি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর সেখানে খোঁজ-খবর নিয়েছি। পরে স্টেশন মাস্টার জামিল উদ্দিন ও গেটম্যান নাদের হোসেনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত টিম করা হবে। এছাড়াও দায়িত্বের অবহেলার কারণে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গেছে, লালমনিরহাট শহরের বিডিআর গেট দিয়ে ২৪ ঘণ্টায় আন্তঃনগর, মেইল ও লোকাল মিলে ৬/৭টি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করে। এ ক্রসিংয়ের কারণে দুই ভাগে বিভক্ত লালমনিরহাট শহর। ক্রসিংয়ের একপাশে সদর হাসপাতাল, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ স্টেশন, উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। আরেক পাশে জেলা জজ আদালত, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়সহ সরকারি কলেজ।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...