আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লালমনিরহাটে দুর্গাপূজার আমেজ নেই মুকুলের পরিবারে!

 

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট।

লালমনিরহাটে অর্থাভাবে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে গেছে মুকুল চন্দ্র (৪৫) নামের এক শারীরিক অসুস্থ দিন মুজুরের।
স্বামীর চিকিৎসার অর্থ জোগাতে এখানে-সেখানে ছুটে বেড়াচ্ছেন অসহায় স্ত্রী পূর্ণিমা। ২ লাখ টাকার প্রয়োজন অসুস্থ স্বামির চিকিৎসায়। তাইতো বাড়িতে নেই দুর্গাপুজার কোনও আমেজ।

মুকুল চন্দ্র লালমনিরহাট পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মাঝাপাড়া এলাকার মৃত সুবল চন্দ্র রায়ের ছেলে।
মুকুলের স্ত্রী ও এলাকাবাসী জানান, মুকুল একজন দিন মুজুর সে মিষ্টি কারিগরের হেল্পার হিসেবে কাজ করতো। প্রায় এক বছরের বেসি সময় পঙ্গু হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে মুকুলসহ তার পরিবার।

মুকুলের স্ত্রী পূর্ণিমা বলেন, ১ বছরের বেশি সময় ধরে তার চিকিৎসা করাতে গিয়ে আমরা নিঃস্ব, এখন টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছিনা। বাড়ি ভিটে ছাড়া আমাদের আর কিছু সম্পদ নেই। ডাক্তার জানিয়েছে, মুকুলের কমরের অংশে শক্তি ও পায়ে একেবারেই কম। ২ থেকে আড়াই লাখ টাকা হলে মুকুল ভালো হয়ে আবার আগের ন্যয় কাজকর্ম করতে পারবে। তাইতো সাহায্যের আকুতি জানিয়েছেন মুকুলের বউ পূর্ণিমা। (মুকুল রায় বিকাশ নাম্বার ০১৭৪০০২৮৫০৫)

প্রতিবেশী ব্যাংক কর্মকর্তা অরুন কুমার রায় বলেন, মুকুল খুব দরিদ্র, এক মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন দিনমজুরী করে আর ৮ বছরের ১ টি ছেলে রয়েছে তার। সংসারে মুকুল একমাত্র উপার্জনকারী, তিনি অসুস্থ হওয়ার পর ছেলেটার পড়ালেখাও বন্ধ হওয়ার উপক্রম প্রায়। সামনে দুর্গাপূজা থাকলেও পরিবারটির এবার কোনও আনন্দের আমেজ নেই।

মুকুল ছাড়া সংসারে হাল ধরার কেউই নেই। মুকুলের স্ত্রী পূর্ণিমা ও প্রতিবেশীদের চাওয়া তার চিকিৎসায় সরকার ও সমাজের বৃত্তবানরা এগিয়ে আসবে।

আর চিকিৎসা শেষে মুকুল আবারও কর্মজীবনে ফিরে সংসারের সকল চাহিদা মেটাবে ও পুজার আনন্দ বছর জুরে থাকবে মুকুল-পূর্ণিমা দম্পতীর সংসারে এমন প্রত্যাশা সবার।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...