আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লালমনিরহাটে প্রকাশ্য ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন প্রশাসন নিরব!

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট।

দেশে বালু উত্তোলন আইন আছে-কিন্তু তার প্রয়োগ নেই। কোন কিছুর তোয়াক্কা না করে লালমনিরহাটের বিমান বাহিনী কতৃপক্ষ রংপুর-বুড়িমারী-মহা-সড়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যারোস্পেস বিশ্ব বিদ্যালয়ের একেবারে সামনে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বালু উত্তোলন করছে।

যে পুকুর থেকে বালু উত্তোলন হচ্ছে সেটি একেবারেই রংপুর-লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের পাশে। তার পাশ দিয়ে প্রতিদিন জেলা প্রশাসনের কর্তাকর্তারা চলাচল করলেও তা দেখে, না দেখার ভান করছেন। এ যেন এক দেশে দুই আইন বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রশাসনের নিরব ভূমিকা দেখে প্রশ্ন উঠেছে জনগনের মাঝে।

জানা গেছে, বিমান বন্দরের বুক জুড়ে বয়ে য়াওয়া রংপুর-লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক সংলগ্ন বিমান বাহিনী লালমনিরহাট ইউনিটের একটি নিজস্ব পুকুর রয়েছে। পুকুরটি কয়েক গজের মধ্যে অবস্থিত নব-নির্মিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়, বহুতলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বিমান বন্দর রানওয়ে ও ঈদগাঁ মাঠ সহ পুরাতন গাছপালার মাঝখানে সেই পুকুর থেকে ক’দিন ধরে অবৈধভাবে ডাবল ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। ফলে বুড়িমারী স্থলবন্দর থেকে ছেড়ে আসা পাথর বোঝাই ট্রাক চলাচলের মহাসড়ক সহ গুরুত্বপূর্ণ সরকারী স্থাপনা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

অথচ বাংলাদেশের প্রচলিত বালু আইনে উল্লেখ রয়েছে, ধারা ৪-এর (খ) অনুযায়ী, সেতু, কালভার্ট, বাঁধ, সড়ক, মহাসড়ক, রেললাইন ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সরকারী ও বেসরকারি স্থাপনা অথবা আবাসিক এলাকা থেকে এক কিলোমিটারের মধ্যে বালু উত্তোলন আইনে নিষিদ্ধ। আইন অমান্যকারী দুই বছরের কারাদণ্ড ও সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন এ বিধান রয়েছে।

এ বিষয়ে এলাকাবাসী উদ্বেগ প্রকাশ করে ক্ষোভের সাথে বলেন, এযেন এক দেশে দুই আইন বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। গরীবরা কোন জায়গা ভরাটের জন্য মেশিন লাগালে প্রশাসন গিয়ে মেশিনে আগুন লাগিয়ে দেন এবং জেল-জরিমানা আদায় করেন। আর গুরুত্বপূর্ণ সরকারী স্থাপনাকে ঝুঁকির মুখে ফেলে অবৈধ ভাবে বিমান বাহিনী কতৃপক্ষ ডাবল মেশিন দিয়ে ক’দিন ধরে বালু উত্তোলন করছেন। প্রশাসনকে বার বার জানানোর পরেও কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেন না।

বিষয়টি নিয়ে বিমান বাহিনীর ওসি সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ এক টুকরো জমিও পরিত্যক্ত রাখা যাবে না। সেই লক্ষে বিমান বাহিনীর দীর্ঘদিনের পরিত্যক্ত পুকুরটি সাধারণ ড্রেজার মেশিন দিয়ে খনন করে জায়গা ভরাট করা হচ্ছে। এটি বোমা মেশিন নয়। তাই আশ- পাশের গুরুত্বপূর্ণ সরকারী স্থাপনার ক্ষতির কোন আশঙ্কা নেই।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা মাসুম বলেন, বিষয়টি আপনার মাধ্যমে জানলাম, মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনকারী যেই হোক, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...