আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লালমনিরহাটে বন্ধু’র হাতে আরেক বন্ধু খুন!

 

আশরাফুল হক, লালমনিরহাট।

লালমনিরহাটে বন্ধুর হাতে আরেক বন্ধু খুন। জেলার
পাটগ্রাম উপজেলায় অটোরিকশাচালক রফিকুলকে (২২) হত্যা করে মাটিতে পুতে রাখার অভিযোগে তারই বন্ধু আইয়ুব আলীকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১২ মে) রাতে উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রাম এলাকায় ভারতীয় সীমান্তের ৫০০ গজ অভ্যন্তরে তিস্তা নদীর বালু চর থেকে রফিকুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আটক আইয়ুব আলী দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার লাটেরহাট ইউনিয়নের চকদফর গ্রামের ইনসান আলীর ছেলে। আর নিহত রফিকুল একই জেলার মোহনপুর ইউনিয়নের চিলকুড়া গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রফিকুল ও আইয়ুব আলী দুইজন ঘনিষ্ট বন্ধু ছিলেন। আটক আইয়ুব আলী গত ৬ দিন আগে পাটগ্রামের দহগ্রামে তার সৎ ভাই জুলফিকার আলীর বাড়িতে বেড়াতে আসেন। বন্ধু আইয়ুব আলীর সঙ্গে দেখা করতে দিনাজপুর থেকে অটোরিকশা চালিয়ে শুক্রবার দুপুরে পাটগ্রামের দহগ্রামে পৌঁছেন রফিকুল ইসলাম। দুপুরে দুই বন্ধু হোটেলে খাবার খেয়ে মদ নিয়ে গুচ্ছগ্রাম এলাকায় ভারতীয় সীমান্ত পিলার এলাকার নিকট তিস্তার বালু চরে বেড়াতে যান। এর একপর্যয়ে ঘাতক আইয়ুব আলী তার বন্ধু রফিকুলের গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহ বালুর চরে পুতে রাখেন। পরে সন্ধ্যায় রফিকুলকে ছাড়া আইয়ুব একাই বাড়িতে ফেরায় তার সৎ ভাই জুলফিকার আলীর সন্দেহ হয়। এরপর বিষয়টি দহগ্রাম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে জানান তিনি।

জুলফিকারের অভিযোগটি পুলিশ আমলে নিয়ে আইয়ুব আলীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যা ও মরদেহ পুতে রাখার বিষয়টি তিনি স্বীকার করেন। তার দেওয়া তথ্য মতে অভিযান পরিচালনা করে ভারতীয় সীমান্তের ৫০০ গজ অভ্যন্তরে বালুচরে পুতে রাখা রফিকুল ইসলামের মরদেহ উদ্ধারের পর লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, আটক আইয়ুব আলীর দেওয়া তথ্য মতে মাটিতে পুতে রাখা রফিকুলের মরদেহ উদ্ধার করে তার পরিবারে খবর দেওয়া হয়েছে। তার পরিবারের সদস্যরা এলে মামলা নেওয়া হবে। মূলত অটোরিকশা কেড়ে নিতেই রফিকুলকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে

 

 

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...