আজ ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সিগনেল পয়েন্টে মটর চুরি রেলস্টেশনে ঝুলছে তালা দূর্ভোগে যাত্রী

হারুনুর রশিদ রায়পুরা প্রতিনিধি

নরসিংদীর রায়পুরায় রেললাইনের সিগনেল পয়েন্টে মটর চুরি ও জনবল সংকটে আমিরগন্জ রেলস্টেশন অর্নিদিষ্টকালের জন্য বন্ধ রয়েছে।

ফলে ব্যাহত হচ্ছে ট্রেন চলাচলসহ যাত্রী সেবা।

মটর চুরি যাওয়ার ঘটনায় গত ৭ আগষ্ট ভৈরব রেলওয়ে থানায় একটি মামলা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত দেড়মাসে আগে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনে ভৈরব ও আড়িখোলা স্টেশনসহ উপজেলার ৫টি স্টেশন পয়েন্টে মটর চুরি হয়।

চুরির ঘটনায় গত ৭আগষ্ট ভৈরব রেলওয়ে থানায় একটি চুরির মামলা হয়। এ ঘটনার পর গত সপ্তাহে আমিরগন্জ স্টেশনটি কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তক্রমে স্টেশন মাষ্টারের দরজায় তালা ঝুলিয়ে ভিতরে বন্ধের নোটিশ টানিয়ে দেয়া হয়।

যাতে লেখা আমীরগঞ্জ রেলস্টেশন অনির্দিষ্টকালের বন্ধ ঘোষণা করায় যাত্রী সাধারণ ট্রেন চলাচলে নানান সমস্যাসহ দূর্ঘটনার আশংকার কথা জানান স্হানীয়রা।
উপজেলার শিল্পাঞ্চল হিসেবে খ্যাত আমীরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন। উপজেলার পশ্চিম অঞ্চলের ৮টি ইউনিয়নের ওই স্টেশন থেকে কয়েক হাজার যাত্রীসহ মালামাল নিয়ে রেলপথে যাতায়াত করে। বিভাগীয় শহরসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতে স্টেশনে যাত্রাবিরতি করে তিতাস কমিউটার, কর্ণফুলী এক্সপ্রেস, সিলেট মেইল ও নোয়াখালী এক্সপ্রেস ট্রেন। তাছাড়া আন্তঃনগর বিভিন্ন ট্রেন ক্রসিংয়ে এই স্টেশনে বিরতি করে। উপজেলায় অবস্থিত ৬টি স্টেশনের মধ্যে হাটুভাঙা রেলওয়ে স্টেশনে কোন মটর পয়েন্ট নেই আপ-ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল করে। ভৈরব থেকে নরসিংদী পর্যন্ত ৩০/৩২ কি.মি রেলসড়কের রায়পুরার ৬ টি স্টেশনে কোন আন্তঃনগর ট্রেন ১ নং লাইনে বিরতি দেয়া সম্ভব হয়না। লোকাল যাত্রীবাহি ট্রেনগুলো ২মিনিট যাত্রা বিরতি দিয়ে কোন রকম ট্রেন চলাচল করে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ৩১ জুলাই ও ০১ আগষ্ট তারিখে রাতে সকাল ৬টার মধ্যে আমিরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের পশ্চিম ২৪/এ ও ২৪/বি এবং ২২/এবি লুক লাইনের ৩টি সিগনাল পয়েন্ট মটর চুরি হয়ে যায়। ইতিপূর্বে আমীরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের পশ্চিম ৩টি পয়েন্ট সংযোগ মটরসহ ৬টি পয়েন্ট মটর চুরি যায়। ফলে স্টেশনটির প্রধান ১নং লাইনে ট্রেন প্রবেশ করতে পারে না। সিগনাল বাতি না জলায় আন্ত:নগর ট্রেন থামিয়ে ওপিটি ২৭ বহিতে স্বাক্ষর করে আউটার সিগনাল থেকে ট্রেন চলাচলের ক্লিয়ারেন্স দেয়া হতো। গত ১৮আগস্ট স্টেশনের পূর্ব পয়েন্ট মটর চারটি খুলে কর্তৃপক্ষ নিজ জিম্মায় রেখে দেয়। স্থানীয় শরিফ বলেন,’শিল্পকারখানা সমৃদ্ধ হাসনাবাদ বাজারের ব্যবসায়ীরা ট্রেনের মালবাহী বগি ব্যবহার করে ব্যবসায়ী মালামাল কৃষিপণ্য ট্রান্সপোর্ট করে থাকেন। যাত্রীরা চরম দূর্ভোগ পোহাচ্ছে।’
যাত্রী আহমেদুল কবির এরশাদ বলেন, ট্রেনের যাত্রীরা জানতে পারেনা ট্রেন কোথায় আছে?একটি জনগুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে স্টেশন জনবল সংকট ও নিরাপত্তার অভাবে চুরির ঘটনায় অনিদিষ্টকালের জন্য রেলস্টেশন বন্ধ করে দেয়ায় যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত চালু করার অনুরোধ করছি।’
ব্যবসায়ী কালাম মিয়া বলেন, এখান থেকে বিভিন্ন মালামাল কম খরচে অনত্র পাঠানো হতো। স্টেশন বন্ধ থাকায় বুকিং দিতে পারচিনা কয়েকদিন যাবতম আমরা দূর্ভোগে আছি।’
মামলার বাদী আমিরগন্জ স্টেশন মেইনটেইনার সহকারী খায়রুল ইসলাম জানান,’ চাকরি জীবনের ৩৮ বছরে এমন ঘটনা ঘটতে দেখিনি শুনিও নাই। পয়েন্ট মটর চুরির ঘনটায় মামলা হয়েছে।জনবল সংকট ও পয়েন্ট মটর চুরির পর অচর হয়ে পড়া স্টেশনটি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে স্টেশন বন্ধ করে নোটিশ দেয়া হয়েছে। বর্তমানে আমি একাই কর্মরত। স্টেশন বন্ধ থাকায় যাত্রীদের ট্রেন চলাচলে নানান সমস্যায় ভূগছে। চুরি যওয়ায় উদিগ্ন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।’
ভৈরব রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিব-উল হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার ও আসামী গ্রেফতার চেষ্টা চলছে।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...