আজ ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জাহাজ ভিড়লো মাতারবাড়ি জেটিতে

মিজবাহ উদ্দিন আরজু, (মহেশখালী):

৬৩ হাজার টন কয়লা নিয়ে দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীর মাতারবাড়িতে সর্বপ্রথম পানামার পতাকাবাহী বিশাল আকৃতির জাহাজ ভিড়ছে।

২৫ এপ্রিল (মঙ্গলবার) বিকাল ৪ টায় মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রের গভীর সমুদ্র বন্দরের জেটিতে ‘অশো মারো’ নামে এ বিশাল জাহাজ এসেছে।

মাতারবাড়ি বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়- মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য ৬৩ হাজার টন কয়লা নিয়ে পানামার পতাকাবাহী জাহাজ ইন্দোনেশিয়া থেকে গত ১৪ এপ্রিল মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরের উদ্দেশ্য রওনা দেন। ১২ দিন পর আজ দুপুর ২ টার দিকে মাতারবাড়ি বন্দরের কাছাকাছি আসলে ৪ টার দিকে তা জেটিতে নোঙর করে। পরিক্ষামূলক ভাবে আমদানিকৃত কয়লা নিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজ শুরু করবে এবং আগামী ডিসেম্বরে বাণিজ্যিক ভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন যাবে কয়লাবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ।

এ সময় জাহাজের ক্যপ্টেন রসোকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বগত জানান মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের এমডি আবুল কালাম আজাদ, মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হায়দারসহ সংশ্লিষ্টরা।

মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের এমডি আবুল কালাম আজাদ বলেন- আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য এই প্রথম ৬৩ হাজার টন কয়লা নিয়ে ইন্দোনেশিয়া থেকে কয়লা পানামা পতাকাবাহী জাহাজ এসেছে। বাণিজ্যিক ভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন জন্য প্রতি মাসে ১টি করে কয়লা নিয়ে বিদেশি জাহাজ আসবে।

আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেন- দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা মতে নির্দিষ্ট সময়ে মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য কয়লা নিয়ে জাহাজ এসেছে। এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও গভীর সমুদ্র বন্দর পুরোদমে চালু হলে দেশের অর্থনীতিসহ পাশাপাশি বেশ কয়েকটি দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ...